, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪ , ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ


ফাইনালের আগে আবারও পিচ বিতর্ক

  • আপলোড সময় : ১৮-১১-২০২৩ ০৩:২৫:২৮ অপরাহ্ন
  • আপডেট সময় : ১৮-১১-২০২৩ ০৩:২৫:২৮ অপরাহ্ন
ফাইনালের আগে আবারও পিচ বিতর্ক
এবার স্বাগতিক দেশ হওয়ায় পিচের সুবিধা নিচ্ছে ভারত, এমন গুঞ্জন বিশ্বকাপের শুরু থেকেই। আইসিসির ইভেন্টে নিজেদের মতো করে পিচ বদলে নেয়ার অভিযোগ উঠেছিল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালে। সে উত্তাপ শেষ না হতে এবার ফাইনালের পিচ নিয়েও শুরু হয়েছে বিতর্ক। আজ রবিবার ১৯ নভেম্বর আহমেদাবাদের নরেন্দ্র স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখেমুখি হবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া।
 
খেলা মাঠে গড়ানোর আগেই বাড়ি ফিরেছেন আইসিসির প্রধান পিচ প্রস্তুতকারক অ্যান্ডি অ্যাটকিনসন। পিচ প্রস্তুত করার কাজটা তাই ভারতীয় কিউরেটররাই নিজ দায়িত্বে করে নিচ্ছেন। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) এক সূত্র সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেন, ‘অ্যাটকিনসনের কাজ শেষ। সে জন্য চলে গিয়েছেন। দয়া করে এখানে কোনো বিতর্ক খুঁজতে যাবেন না। কারণ কোনো বিতর্কই নেই এতে। আইসিসির কোনো নিয়মেই লেখা নেই যে ফাইনালে প্রধান পিচ প্রস্তুতকারককে থাকতেই হবে।’
 
তবে আইসিসি বলছে, ফিরে যাননি অ্যাটকিনসন। ম্যাচের আগের দিনই পিচ দেখতে মাঠে আসবেন তিনি। এ বিষয়ে আইসিসির এক সূত্র পিটিআইকে বলেন, ‘অ্যাটকিনসন বাড়ি যাননি। আইসিসির কর্ম-কর্তাদের সঙ্গে শুক্রবার দুপুরেই আহমেদাবাদে এসেছেন উনি। তবে মাঠে আসেননি। শনিবার মাঠে এসে পিচ দেখবেন।’
 
এর আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালে পিচ বদলানোর অভিযোগ উঠেছিল ভারতের বিপক্ষে। পূর্বনির্ধারিত পিচ বদলে নিজেদের পছন্দ মতো পিচ বাছাই করেছিল তারা। তবে বিষয়টিকে অনিয়ম হিসেবে দেখছে না আইসিসি। ম্যাচশেষে এ নিয়ে কোনো অভিযোগও করেননি কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

এদিকে নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামের পিচ নিয়ে আগে থেকেই সতর্ক ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেমিফাইনালে জয়ের পর এ নিয়ে কথা বলেছিলেন পেসার মিচেল স্টার্ক। তিনি বলেন, ‘আমরা আহমেদাবাদে পৌঁছালে সেখানকার পিচ সম্পর্কে বলতে পারব। আগে সেখানে পৌঁছাই তারপর আমরা সবটা খুঁজে বের করতে পারব এবং দেখতে পাব যে নতুন উইকেটে খেলা হয় নাকি পুরনো উইকেটই খেলা হয়।’
কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের শুনানি রবিবার, বিশেষ চেম্বার আদালতের আদেশ

কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের শুনানি রবিবার, বিশেষ চেম্বার আদালতের আদেশ