, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪ , ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ


মা বাড়ি ফিরে দেখলেন মেয়ের বিবস্ত্র মরদেহ

  • আপলোড সময় : ২৪-০৬-২০২৩ ০২:৫৭:১৪ অপরাহ্ন
  • আপডেট সময় : ২৪-০৬-২০২৩ ০২:৫৭:১৪ অপরাহ্ন
মা বাড়ি ফিরে দেখলেন মেয়ের বিবস্ত্র মরদেহ ফাইল ছবি
নরসিংদীর পলাশের জিনারদীতে বসতঘরে বিনা মিত্র (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (২৪ জুন) সকালে উপজেলার জিনারদী ইউনিয়নের বড়িবাড়ি এলাকার বসতঘর থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। 

এর আগে শুক্রবার (২৩ জুন) রাতে ঘরের ভেতরে ঢুকে কে বা কারা বিনা মিত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে বিবস্ত্র অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। নিহত কলেজছাত্রী বরাব গ্রামের মুকুঞ্জ মিত্রের মেয়ে। তবে কারা তাকে হত্যা করেছে সে বিষয়ে এখনো জানা যায়নি।

নিহতের পরিবারের বক্তব্যের বরাত দিয়ে জিনারদী ইউপি মেম্বার জয়ন্ত দাস জানান, বিনা মিত্র ঘোড়াশাল মুসাবিন হাকিম ডিগ্রি কলেজর দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। পড়ালেখা চলাকালীন ঘোড়াশাল পৌর এলাকার লাগাইল্লা গ্রামের জগদিস মিত্রের ছেলে সঞ্জয় মিত্রের সঙ্গে বাবা-মার অজান্তে প্রেম করে বিয়ে করে বিনা। কিন্তু সে থাকতো তার মা-বাবার সঙ্গেই। মাঝে মধ্যে তার স্বামীও তাদের বাড়িতে আসা যাওয়া করতো।
 
গতকাল শুক্রবার রাতে বরাব মন্দিরে পাশে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে রথ যাত্রার অনুষ্ঠানের প্রসাদ খাওয়া শেষে বাড়িতে ফিরে আসেন তারা। পরে রাতে বাবা-মার থাকার ঘরের পাশের আরেকটি ঘরে পড়তে বসে বিনা। এসময় তার মা উর্মিলা মিত্র কবিরাজি চিকিৎসা নিতে পাশের বাড়িতে যান। আর বাবা ও তার ভাই পাশের রুমে ঘুমিয়ে পড়ে। পরে রাত ৯টার দিকে তার মা বাড়িতে ফিরে মেয়ের বিবস্ত্র মরদেহ দেখতে পায়। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পলাশ থানা ও জেলা পুলিশ। পরে আজ সকালে পুলিশ তার মরদেহ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে।

পলাশ থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) সামসুল হক জানান, সকালে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের মরদেহের বুকে ছুরিকাঘাত ও ছুরিবিদ্ধ ছিল। এ ঘটনায় তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের শুনানি রবিবার, বিশেষ চেম্বার আদালতের আদেশ

কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের শুনানি রবিবার, বিশেষ চেম্বার আদালতের আদেশ