, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪ , ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ


ইন্টার মায়ামিই আমার সম্ভাব্য শেষ ক্লাব: মেসি

  • আপলোড সময় : ১৩-০৬-২০২৪ ০৪:৩৭:৫৩ অপরাহ্ন
  • আপডেট সময় : ১৩-০৬-২০২৪ ০৪:৩৭:৫৩ অপরাহ্ন
ইন্টার মায়ামিই আমার সম্ভাব্য শেষ ক্লাব: মেসি
এখন ফুটবল থেকে আর কোনোকিছুই জেতার নেই লিওনেল মেসির। নেই কোনো কিছু প্রমাণের। সর্বকালের সেরা হিসেবে মেসিকে মানতেও খুব বেশি মানুষের আপত্তি নেই। ক্যারিয়ার সায়াহ্নে থাকা আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি ফুটবলটা চুটিয়ে উপভোগ করতে গত গ্রীষ্মে যোগ দেন যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারের (এমএলএস) দল ইন্টার মায়ামিতে। মেসি যোগ দেয়ার পর থেকে দেশটির ফুটবলে এসেছে নতুন জোয়ার।
 
এদিকে বার্সেলোনার হয়ে দীর্ঘ ক্যারিয়ারে সম্ভাব্য সব কিছুই জিতেছেন মেসি। লা লিগায় সর্বোচ্চ গোলের মালিকও হয়েছেন কাতালান ক্লাবটিতে খেলেই। কিন্তু ক্লাবটির খারাপ আর্থিক অবস্থার প্রেক্ষিতে ২০২১ সালে অনেকটা বাধ্য হয়ে আজন্মের ভালোবাসার ক্লাব ছাড়তে হয় মেসিকে।

এরপর দুই মৌসুম পিএসজিতে কাটিয়ে গত বছর এমএলএসের দল ইন্টার মায়ামিতে তরী ভেড়ান মেসি। আর্জেন্টাইন মহাতারকার নাম জড়িয়ে বেশ কয়েকটি ক্লাবের নাম শোনা গেলেও শেষমেশ তিনি বেছে নেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্লাবটিকেই। অথচ সৌদি লিগের ক্লাব আল হিলাল এর চেয়ে অনেক বেশি লাভজনক চুক্তির অফার দিয়েছিল।

এদিকে ইন্টার মায়ামিকে মেসির বেছে নেওয়ার পেছনে ছিল বিশেষ কারণ। ক্যারিয়ারের শেষ পর্যায়ে এসে মেসি চাপমুক্ত থেকে ফুটবলটা উপভোগ করতে চাচ্ছিলেন। সেই সঙ্গে আমেরিকার জীবনযাপনের ধরনও তার বেশ পছন্দ। এমএলএসের হয়ে প্রথম মৌসুমে লিগ শিরোপা জিততে না পারলেও লিগস কাপের শিরোপা জিতেছেন তিনি।
 
চলতি মৌসুমেও লিগে বেশ ভালো অবস্থানে তার দল। ক্লাবটিতে যোগ দেয়ার পর থেকেই জাদু দেখিয়ে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা। তার আগমনের পর থেকেই দেশটির ফুটবলে লেগেছে নতুন জোয়ার। কিন্তু মেসির পরবর্তী গন্তব্য হতে যাচ্ছে কোন ক্লাব, তা নিয়েও কৌতূহল বেড়েই চলেছে।

অনেকেরই অনুমান, শৈশবের প্রথম ক্লাব নিউ ওয়েলস ওল্ড বয়েজের হয়ে খেলে ক্যারিয়ার শেষ করবেন মেসি। কিন্তু সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ভিন্ন কথা জানিয়েছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা। তিনি জানান, ইন্টার মায়ামিই তার সম্ভাব্য শেষ ক্লাব। এখানে খেলেই হয়ত ফুটবলকে বিদায় বলে দেবেন তিনি।

এই মুহূর্তে কোপা আমেরিকার জন্য আর্জেন্টিনা দলের সঙ্গে প্রস্তুতি নিচ্ছেন মেসি। সেখানেই বুধবার (১২ জুন) ইএসপিএনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, 'ইন্টার মায়ামিই হয়তো আমার জীবনের শেষ ক্লাব। আমি আমার জীবন জুড়ে এটাই (ফুটবল খেলা) করেছি, আমি বল খেলতে ভালোবাসি। আমি  অনুশীলন উপভোগ করি এবং খেলাটাকেও। হ্যাঁ, একটা ভয় তো কাজ করেই, একদিন সব শেষ হয়ে যাবে। এটা সবসময়ই ছিল। ইউরোপ ছেড়ে এখানে (মায়ামি) আসার সিদ্ধান্ত নেওয়াটা কঠিন ছিল।'

মেসি যোগ করেন, 'বিষয়টা হচ্ছে বিশ্বকাপ জেতাটা আমাকে সাহায্য করেছে, এটা আমাকে অনেক সাহায্য করেছে বিষয়গুলো অন্যভাবে দেখতে। তবে আমি এটা আর ভাবতে চাই না। আমি এটা উপভোগ করতে চাই। আমি এটা এখন আরও বেশি করে করছি কারণ আমি জানি আর খুব বেশি সময় বাকি নেই। এই ক্লাবে আমার দারুণ সময় কাটছে, আমার পাশে এমন ভালো বন্ধু ও সতীর্থদের পাওয়ায় আমি সৌভাগ্যবান।'

এদিকে জাতীয় দলে খেলাটাও উপভোগ করছেন বলে জানান মেসি। খুব দ্রুত অবসর নেওয়ার পরিকল্পনাও নেই বলেও জানান। ২০২৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রেই বসছে পরবর্তী বিশ্বকাপ। সেই বিশ্বকাপে অংশ নিলে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ খেলার রেকর্ড গড়বেন মেসি। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, 'আমি কোনো রেকর্ড গড়তে সেখানে যেতে চাই না বা এটাও বলতে চাই না যে, আমি পাঁচটা-ছয়টা বিশ্বকাপ খেলেছি। আমি কখনোই রেকর্ড নিয়ে বেশি ভাবিনি। রেকর্ড করা বা ধরে রাখা দারুণ বিষয় কিন্তু আমি একটা বিশ্বকাপে শুধু এটা বলতে থাকতে চাই না যে, আমি ছয়টা বিশ্বকাপ খেলেছি।'
 
তিনি যোগ করেন, 'যদি এটা হয়, যদি আমি ভালো অবস্থায় থাকি এবং যেভাবে ভাবছি সেভাবেই যদি হয়, তবে ঠিকঠাক। কিন্তু শুধু থাকার জন্য থাকার হলে, বলবো- না।' চলতি মৌসুমে ইন্টার মায়ামির জার্সিতে সব কম্পিটিশন মিলিয়ে ১৪ গোল করেছেন মেসি। আটবারের ব্যালন ডি'অরজয়ী তারকা ক্লাবটিতে দারুণ সময় উপভোগ করছেন। গত মৌসুমেই তার দেখাদেখি ক্লাবটিতে যোগ দিয়েছেন তার বার্সেলোনা সতীর্থ সার্জিও বুসকেটস এবং জর্দি আলবা। আর চলতি মৌসুমে যোগ দিয়েছেন বার্সেলোনার আরেক সতীর্থ এবং বন্ধু লুইস সুয়ারেজও। 
কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের শুনানি রবিবার, বিশেষ চেম্বার আদালতের আদেশ

কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের শুনানি রবিবার, বিশেষ চেম্বার আদালতের আদেশ